আফগানিস্তানে আরো সামরিক ঘাঁটি নির্মাণ করবে যুক্তরাষ্ট্র!

আফগানিস্তানে আরো সামরিক ঘাঁটি নির্মাণ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র! আর্ন্তজাতিক সংবাদমাধ্যমে সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের একটি জাহাজ নির্মাণ সামগ্রী নিয়ে করাচি বন্দরে ভিড়েছে। সেখান থেকে ওই সব সামগ্রী আফগানিস্তানে নিয়ে যাওয়া হবে। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা জানিয়েছিল, আফগানিস্তানে নতুন করে সাড়ে তিন হাজার সেনা পাঠানো হবে। নতুন সেনাসদস্যরা আফগান বাহিনীর সহায়ক হিসেবে কাজ করবেন। যদিও বেশ কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তা মার্কিন সেনাসদস্য বৃদ্ধির এ সিদ্ধান্তকে যৌক্তিক মনে করছেন না। তাদের মতে, মার্কিন সেনারা আফগানিস্তানের নিরাপত্তা বা শৃঙ্খলা বৃদ্ধিতে তালেবানের বিরুদ্ধে তেমন কোনো ভূমিকা রাখতে পারছে না।

মার্কিন সেনাবাহিনীর জাহাজে করে আনা নির্মাণ সামগ্রীর তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, সেখানে এমন সব সামগ্রী রয়েছে যেগুলো সামরিক ঘাঁটি নির্মাণের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আফগানিস্তানে এর আগেও সামরিক ঘাঁটি নির্মাণ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে বাগরাম বিমান ঘাঁটি এবং কান্দাহার ঘাঁটি। এসব ঘাঁটি ব্যবহার করে বহু নিরপরাধ মানুষকে হত্যা করেছে মার্কিন বাহিনী। আফগানিস্তানে বর্তমানে আমেরিকার ১৫ হাজারের বেশি সেনা মোতায়েন রয়েছে।

বিশেষজ্ঞের মতে, আফগানিস্তানে চলমান সংঘর্ষ ও অনিরাপত্তার পেছনে রয়েছে এসব মার্কিন সেনা।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের আফগানিস্তান নীতি নিয়ে দীর্ঘ পর্যালোচনার পর সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আফগানিস্তানে মার্কিন অভিযানের ‘দ্রুত সমাপ্তির’ প্রতিশ্রুতি দেন। ২০০১ সালে আফগানিস্তানে অভিযান চালায় মার্কিন বাহিনী। তালেবান ও অন্যান্য ইসলামি কট্টরপন্থীর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের লড়াইয়ে এখন পর্যন্ত ২ হাজার ৩০০ মার্কিন সেনা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১৭ হাজারের বেশি।

atrustit-black-friday-offer

পাঠকের মতামত