ঢাকায় পৌঁছেছে রোবট সোফিয়া

বাংলাদেশে অনুষ্ঠিতব্য ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ এ অংশ নিতে যাচ্ছে বিশ্বব্যাপী কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা শিল্পে আলোড়ন সৃষ্টি করা মানব শ্রেণির রোবট সোফিয়া। এ উপলক্ষে ৫ ডিসেম্বর মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে সোফিয়া ঢাকায় পৌঁছেছে। থাই এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট (নম্বর-টিজি ৩৩৯) করে সোফিয়া ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

সম্প্রতি এই রোবটকে সৌদি আরবের নাগরিকত্ব দেওয়া হয় যা নিয়ে বিশ্বব্যাপী ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা হয়। জানা গেছে, সৌদি আরবের এ নাগরিকের দেহের বিভিন্ন অংশ খুলে খণ্ড-খণ্ডভাবে ঢাকায় আনা হয়েছে। যা সংযোজন করে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে উপস্থাপন করা হবে।

সম্প্রতি একটি ভিডিও বার্তায় বাংলাদেশকে বাংলায় ‘ধন্যবাদ’ জানিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছে এই রোবটটি। ২৮ সেকেন্ডের একটি ভিডিও বার্তার শুরুতে সোফিয়া বলে- ‘হ্যালো বাংলাদেশ, আই এম সোফিয়া’।

ভিডিও বার্তায় পরবর্তীতে সোফিয়া যা বলে তার বাংলা করলে দাঁড়ায়- আমি হ্যানসন রোবোটিক্স এর তৈরি পৃথিবীর প্রথম কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন রোবট। আমি অনেক আনন্দের সাথে তোমাদের জানাচ্ছি যে, আমি এবং ড. ডেভিড হ্যানসন এই বছর ঢাকায় আয়োজিত ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭’ তে অংশগ্রহণ করছি। এত বড় একটা ইভেন্টের অংশীদার হবার জন্য আমি উদগ্রীব হয়ে অপেক্ষা করছি।

সে আরও বলে, আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি ডিভিশন এবং ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশকে আমাদেরকে এই সুযোগটি করে দেয়ার জন্য। আশা করছি, সবার সাথে দেখা হবে।

সবশেষে বাংলা ভাষায় ‘ধন্যবাদ’ জানায় মানব শ্রেণির এই রোবটটি। সোফিয়ার ভিডিও বার্তাটি দেখতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

উল্লেখ্য, আগামী ৬-৯ ডিসেম্বর রাজধানীর বঙ্গবন্ধু ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স সেন্টারে (বিআইসিসি) পঞ্চম বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে তথ্যপ্রযুক্তির এই মহাযজ্ঞ। মেলা চলবে সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত।

মেলায় প্রবেশ করতে চাইলে করতে হবে রেজিস্ট্রেশন। ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ওয়েব সাইট ছাড়াও মেলায় প্রবেশের জন্য বিনামূল্যে এই রেজিস্ট্রেশন করা যাবে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে। এরজন্য গুগল অ্যাপ স্টোর থেকে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ নামে অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে।

জানা যায়, এই অ্যাপের মাধ্যমে প্রতিদিনকার ইভেন্ট জানার পাশাপাশি মেলা সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্যও পাওয়া যাবে।

আইসিটি ডিভিশনের উদ্যোগে আয়োজিত এই মেলায় আয়োজন সহযোগী হিসেবে থাকছে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি), বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) ও একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই)।

মেলার পার্টনার হিসেবে থাকছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্য), ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব), বাংলাদেশ আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরাম (বিআইজেএফ), বাংলাদেশ উইমেন ইন আইটি (বিআইডব্লিউটি), সিটিও ফোরাম।

atrustit-black-friday-offer

সুত্র: প্রিয়.কম

পাঠকের মতামত